ভারতের সঙ্গে ৯টি রেল রুট সংযুক্ত হচ্ছে

ভারতের সঙ্গে ৯টি রেল রুট সংযুক্ত হচ্ছে

ভারতের সঙ্গে মোট ৯টি রেল ইন্টারচেঞ্জ রেল রুট চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। আজ সোমবার বিকেলে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এতথ্য জানান।

সংসদ সদস্য আলী আজমের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, বাংলাদেশ থেকে ভারতের সঙ্গে রেলওয়ে সংযোগের জন্য ৭টি ইন্টারচেঞ্জ পয়েন্ট আছে। এর মধ্যে বর্তমানে ৪টি চালু রয়েছে। বাকি ৩টি ইন্টারচেঞ্জ চালু করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া আরো দুটি নতুন ইন্টারচেঞ্জ পয়েন্ট চালুর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এসব রেল সংযোগের মধ্যে রয়েছে, দর্শনা- ভারতের গেদে, বেনাপোল- পেট্রাপোল, রোহনপুর- সিঙ্গাবাদ, বিরল- রাধিকাপুর, শাহবাজপুর- মহিশাসন, চিলাহাটি- হলদিবাড়ি, বুড়িমারী- চেংরাবান্ধা, আখাউড়া- আগরতলা এবং ফেনী থেকে ভারতের বিলোনিয়া পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণ।

সরকারি দলের নূরুন্নবী চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী জানান, যানজট নিরসনে ঢাকা শহরের চারিদিকে বৃত্তাকার রেলপথ নির্মাণের জন্য একটি সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রস্তাব গত ২০১৭ সালের ২৭ ডিসেম্বর পরিকল্পণা কমিশনে অনুমোদিত হয়। এর পরামর্শক নিয়োগের জন্য দু’বার ইওআই আহ্বান করা হয়েছে। সমীক্ষা প্রতিবেদনের ভিত্তিতে নির্মান প্রকল্প গ্রহণ করা হবে বলেও তিনি জানান।

প্রশ্নকর্তার সম্পূরক  প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী বলেন, ঢাকা থেকে সিলেট এবং ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত দ্রুত গতির রেল রুট চালুর ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে রেলওয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। ইতিমধ্যে এ রুটের সম্ভাব্যতা যাচাই করার কাজ চলছে। আশাকরি সম্ভাব্যতা যাচাই শেষ হলে আমরা ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে দ্রুত গতির রেল লাইন বসানোর কাজ করতে সমর্থ হবো।