ক্ষুদ্র অর্থায়নের জন্য নতুন একটি আইন করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার

‘ইসলামিক মাইক্রো ফাইন্যান্স ইনস্টিটিউট অ্যাক্ট’-ইসলামী শরিয়াহভিত্তিক পদ্ধতিতে ক্ষুদ্র অর্থায়নের জন্য নতুন একটি আইন করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।  অর্থ মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তে বাংলাদেশ ব্যাংক নতুন আইনের একটি খসড়া প্রস্তুত করেছে। সূত্র জানায়, বাংলাদেশে যেসব ব্যাংক ইসলামী ব্যাংকিং করছে এবং প্রচলিত ধারার যেসব ব্যাংকের ইসলামী ব্যাংকিং শাখা রয়েছে তাদের অর্থায়নে ইসলামিক মাইক্রো ফাইন্যান্স ইনস্টিটিউট গড়ে উঠবে। প্রচলিত ব্যাংকের মতো এ প্রতিষ্ঠানের পরিশোধিত মূলধন হবে ৪০০ কোটি টাকা। ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (আইডিবি)১৬০ কোটি টাকা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। গ্রামীণ ব্যাংকের মতো এটিও শুধু ক্ষুদ্র বিনিয়োগ করবে এবং আলাদা আইন দ্বারা পরিচালিত হবে। তবে গ্রামীণ ব্যাংকের চেয়ে এ প্রতিষ্ঠানের ওপর কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিয়ন্ত্রণ থাকবে বেশি। ইসলামী ব্যবস্থায় অর্থায়ন, যাকাতসহ বিভিন্ন বিষয় অন্তর্ভুক্ত থাকায় প্রচলিত পদ্ধতির তুলনায় এটি জনকল্যাণমূলক হবে। এটি বাস্তবায়নে দেরি হওয়ার কথা নয়, যদ্দুর জানি পরিণত অবস্থানে পৌঁছেছে।  সূত্র জানায়, ইসলামিক ক্ষুদ্র অর্থায়নের আওতায় পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর মধ্যে অর্থায়নের পাশাপাশি তাদের কাছ থেকে সঞ্চয়ও নেয়া হবে।